কিভাবে গলা ব্যথা দূর করা যায়? গলা ব্যথা দূর করার উপায়। গলা ব্যথা দূর করার ঘরোয়া উপায়।

কিভাবে কাশি দূর করা যায়? কাশি দূর করার উপায় - কাশি ভালো করার উপায়

বর্তমান সময়ে প্রায় অনেকেরেই গলা ব্যথা হতে দেখা যায়। আর শীতকালে যেন গলা ব্যথা বেড়ে যায়। কাশি এবং গলা ব্যাথা অনেক সময় দুটোই একসাথে দেখা যায়। কিন্তু আমরা চাইলে কিছু উপায় অবলম্বন করে গলা ব্যথা দূর করতে পারে। কিন্তু দেখা যায় আমরা অনেকেই এ সমস্ত উপায়গুলো জানিনা যেগুলোর মাধ্যমে আমাদের গলা ব্যথা দূর করা যায়। বর্তমান সময়টাতে গলাব্যথা অন্যান্য সময়ের তুলনায় একটু বেশি হয়ে থাকে। এবং গলা ব্যথা হওয়ার পর আমরা অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়ে। আমাদের শরীর অসুস্থ হয়ে পড়ে। আমরা বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। আমাদের কিন্তু আমরা চাইলে একটু উপায় অবলম্বন করে আমরা আমাদের এই সমস্যাগুলো সমাধান করতে পারি। আমরা আমাদের গলা ব্যথা দূর করে নিতে পারে। 

গলা ব্যথা হলে হতাশ হওয়া যাবেনা। গলা ব্যথা হলে কোন রকম দৌড়ঝাঁপ করা যাবে না। ঠান্ডা মাথায় কিছু উপায় অবলম্বন করতে হবে যেগুলোর মাধ্যমে আমরা খুব সহজেই গলা ব্যথা দূর করতে পারি। অল্প সময়ের মধ্যে আমরা যেভাবে গলা ব্যথা দূর করতে পারি সে উপায় গুলো আমাদের অবলম্বন করতে হবে। আমরা কিছু নির্দিষ্ট উপায় অবলম্বন করলে আমাদের কলাপাতায় দূর হবে। সেগুলো হতে পারে ঘরোয়া কোন উপায় গুলো অথবা এমনিতেই কোন উপায় অবলম্বন করা যেতে পারে। তবে গলা ব্যথা দূর করার জন্য ঘরোয়া উপায় অবলম্বন করবো যে গুলোর মাধ্যমে আমরা আমাদের গলা ব্যথা দূর করতে পারব।

তো চলুন জেনে নেয়া যাক গলা ব্যথা দূর করার উপায় সমূহ। কিভাবে গলা ব্যথা দূর করা যায়? গলা ব্যথা দূর করার ঘরোয়া উপায়।

  • কিভাবে গলা ব্যথা দূর করা যায়?
  • গলা ব্যথা দূর করার উপায়।
  • গলা ব্যথা দূর করার ঘরোয়া উপায়।
  • গলাব্যাথা হলে করণীয়।
  • গলা ব্যথা দূর করার ঘরোয়া উপায় সমূহ।
  • গলা ব্যথা দূর করার উপায় সমূহ।
  • গলা ব্যথার সময় কি কি করা উচিত?
  • কি কি করলে গলা ব্যথা দূর হবে?
  • গলা ব্যথা কমানোর উপায়।
  • কিভাবে গলা ব্যথা কমানো যায়?
  • গলা ব্যথা।

লেবুর রস

কিভাবে কাশি দূর করা যায়? কাশি দূর করার উপায় - কাশি ভালো করার উপায়
আমাদের যখন গলাব্যাথা হয় তখন আমরা প্রায় অনেকেই লেবুর রস খেয়ে থাকি। যাতে করে আমাদের গলা ব্যথা দূর হয়। তাই অনেকেই বলে থাকে গলা ব্যথা দূর করতে লেবুর রস খুবই উপকারে আসে। লেবুর রস খেলে গলা ব্যথা দূর হয়। তাই আপনি আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য লেবুর রস খেতে পারেন। আপনি বিভিন্নভাবে লেবুর রস খেতে পারেন। আপনি যে কোনভাবেই লেবুর রস খান না কেন লেবুর রস আপনার গলা ব্যথা দূর করতে ভূমিকা রাখবে। চাইলে লেবুও খেতে পারেন। লেবু গেলেও আপনার গলা ব্যথা কমবে। আপনি চাইলে কিছু পরিমাণ লেবু খেতে পারেন। সাথে কিছু পরিমাণ লবণ নিতে পারেন। অর্থাৎ লবণ এবং লেবু খেতে পারেন। 

এছাড়া আপনি চাইলে কিছু পরিমাণ লেবুর রস তার সাথে কিছু পরিমাণ পানি এবং কিছু পরিমাণ লবণ দিয়ে আপনি একটি মিশ্রণ তৈরি করে। এটা গলা ব্যথা দূর করার জন্য খেতে পারেন। লেবুর রস আপনি যেকোন উপায়ে খেতে পারেন। লেবুর রস শুধু আপনার গলা ব্যথা না। আমাদের শরীরের জন্য অনেক উপকার। লেবুর রস খেলে আমাদের বিভিন্ন উপকার গুলো হয়ে থাকে। আপনি যখন লেবুর রস খাবেন তখন আপনার শরিরে বিভিন্ন উপকারে আসবে। এর পাশাপাশি আপনার যখন গলাব্যাথা হবে তখন আপনি লেবুর রস খেতে পারেন। লেবুর রস খেতে পারবেন। যে কোন ভাবেই আপনি লেবুর রস খান না কেন। এটি যেমন আপনার উপকারে আসবে ঠিক তেমনি আপনার গলা ব্যথা দূর করার ক্ষেত্রে সাহায্য করবে। এছাড়াও আপনি গরম পানির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য খেতে পারেন। অর্থাৎ আপনি বিভিন্ন উপায়ে আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য লেবুর রস খেতে পারেন।

লবণ পানির গারগোল

গলা ব্যথা হলে সাময়িকভাবে মানুষজন লবণ পানি খেয়ে থাকে। তবে লবণ খান পানি খাওয়ার পাশাপাশি লবণ পানির গারগোল করা যেতে পারে। আপনি যদি লবণ পানি খেয়ে থাকেন। তাহলে আপনার গলা ব্যথা কিছুটা হলেও কমবে। আপনার গলা ব্যথায় আপনাকে এটা স্বস্তি দিবে। এর পাশাপাশি আপনি গলা ব্যথার সময় গরম পানির গারগল করতে পারেন। এজন্য আপনি কিছু পানি নিবেন এবং ওই পানিতে কিছু পরিমাণ লবণ মিশিয়ে নেবেন। দুটো ভালোভাবে মিশিয়ে তারপর আপনি ভাল করেই দুটো খেয়ে নিবেন। লবণ পানির মিশ্রণ এর পাশাপাশি আপনি লবণ পানির মিশ্রণ দিয়ে আপনি কুলি করতে পারেন। এবং গারগোল করতে পারেন। তবে আপনি চাইলে লবণ পানি গরম করে নিতে পারেন। অর্থাৎ আপনি লবণ পানি গরম করে তারপর আপনি এ সমস্ত কাজগুলো করতে পারেন। এতে করে আপনার গলা ব্যথা দূর হবে।

গরম পানি

গলা ব্যথা দূর করার জন্য আরেকটি উপায় অবলম্বন করা যেতে পারে। সেটি হল গরম পানি গরম পানি। আমাদের গলা ব্যথা দূর করার জন্য খুবই কাজে আসে। কেননা আপনি যেকোন উপায় অবলম্বন করবেন গলা ব্যথা দূর করার জন্য। সেখানে আপনাকে গলা ব্যথা দূর করার উপাদান এর সাথে পানি মিশ্রিত করতে হয়। পানি মিশ্রিত করবেন সেখানে আপনাকে গরম পানির মিশ্রণ করা লাগবে। গলাব্যথা সময় আপনি তো তেমন ঠান্ডা পানি খেতে পারবেন না। গলা ব্যথার সময় অবশ্যই আপনাকে গরম পানি খেতে হবে। আপনি শুধু গরম পানি খেলেও আপনার গলাব্যাথা কিছুটা কমবে। আর আপনি যখন গলা ব্যথার অন্যান্য উপাদানসমূহ অবলম্বন করবেন। অন্য কোন উপায় অবলম্বন করে গলা ব্যথা দূর করতে চাইবেন বা অন্য কোন উপাদান আপনি খেতে চাইবেন। তখন আপনাকে উক্ত উপাদানের সাথে গরম পানি মিশ্রন করা লাগবে। গরম পানি মিশাতে হবে। 

তাই গলা ব্যাথা দূর করার জন্য গরম পানি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। এর সাথে লবণ গরম পানি মিশিয়ে খেতে পারেন। এছাড়া গরম পানির সাথে কিছু পরিমাণ লবণ মেশাতে পারেন। যখন গরম পানির সাথে লবণ মিশিয়ে খাবেন। তখন আপনি আপনার গলা ব্যথা থেকে কিছুটা উপশম পাবেন। এছাড়া আপনি অন্যান্য উপাদান যখন খেতে যাবেন। তখন আপনি সেখানে যদি লবণ পানি খান তখন আপনার উপাদানগুলো ভালো কাজে দিতে পারে। অনেক সময় আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য বিভিন্ন উপাদান গুলো খাওয়ার প্রয়োজন হতে পারে। এবং সেখানে আপনার গরম পানি মেশানোর প্রয়োজন হতে পারে। এবং অনেক সময় দেখা যায় সেই গরম পানিতে আপনাকে লবন মিশাতে হতে পারে। এ বিষয়গুলো অবশ্যই আপনি খেয়াল করে গরম পানি খেতে পারেন। আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য যেগুলো আপনার গলা ব্যথা দূর করতে সাহায্য করবে। এছাড়া আপনি শুধু গরম পানি খেতে পারেন আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য।

মেথি

কিভাবে কাশি দূর করা যায়? কাশি দূর করার উপায় - কাশি ভালো করার উপায়
গলা ব্যথা দূর করার আরেকটি উপায় হল মেথি। মেথির সাহায্যে আপনি আপনার গলা ব্যথা দূর করতে পারবেন। আপনি কিছু মেথি নিয়ে তার সাথে পানি যোগ করে খেতে পারেন। তবে আপনি চাইলেই মেথির চা বানিয়ে খেতে পারেন। অর্থাৎ আপনি যেভাবে সাময়িকভাবে চা বানিয়ে থাকেন সেভাবে আপনি মেথি দিয়ে চা বানাতে পারেন। আপনি যদি মেথির চা খেতে পারেন তাহলে আপনার যে গলা ব্যথা আছে সেটি কিছুটা হলেও কমে যাবে। এবং আপনি স্বস্তি পাবেন। অথবা আপনি চাইলে মেথির চা বানিয়ে আপনি শুধু মেথির সাথে পানি মিশিয়ে মেথি এবং পানি খেতে পারেন। অর্থাৎ মেথি এবং গরম পানি খেলেও আপনার গলা ব্যথা কিছুটা হলেও কমবে। যে কোন মাধ্যমে অবলম্বন করতে পারেন। হয়তো গরম পানির সাথে মেথি যোগ করে আপনি মেথি এবং গরম পানি মিশিয়ে খেতে পারেন। অথবা আপনি মেথির চা খেতে পারেন আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য।

রসুন

রসুন আমাদের শরীর যেন অনেক উপকারি। রসুনে অনেক ধরনের উপাদান আছে যেগুলো আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকার হয়। তবে আপনি চাইলে আপনার গলা ব্যথার জন্য খেতে পারেন। আপনি কিছু পরিমাণ নিয়ে আপনার গলা ব্যথার জন্য খেতে পারেন। অথবা চাইলে রসুন কুচি কুচি করে তারপর আপনি সেগুলো খেতে পারেন। এছাড়া আপনি গরম পানির সাথে মিশিয়ে খেতে পারেন এবং আপনার গলা ব্যথা দূর করবেন। রসুন যখন আপনার দেহে প্রবেশ করবে তখন আপনার দেহে উপাদানগুলো গলা ব্যথা দূর করার জন্য খুব ভালোভাবে কাজ করতে পারে। রসুন খেতে পারেন যেগুলো আপনার জন্য ভালো হবে। যেভাবে আপনি রসুন খেলে আপনার ভালো লাগবে সে ভাবে আপনি খেতে পারেন যাতে করে আপনার গলা ব্যথা দূর হয়।

গোলমরিচ

গোলমরিচ আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। গোলমালের শুধু একটি মশলা গোলমরিচ একটি উপাদান যেটির মাধ্যমে আপনি আপনার গলা ব্যথা দূর করতে পারেন। শুধু গলাব্যথা না আপনার দেহের অন্যান্য রোগের জন্য গোলমরিচ খুবই ভালো কাজ করে। আপনি যদি সর্দি হয় তাহলে আপনি গোলমরিচ খেতে পারেন। গোলমরিচ আপনি বিভিন্নভাবে খেতে পারেন। আপনি চাইলে কোন মানুষ খাবারের সাথে খেতে পারেন। অথবা গরম পানির সাথে মিশিয়ে খেতে পারেন। অথবা আপনি চাইলে গোলমরিচ চায়ের সাথে মিশিয়ে খেতে পারেন। অথবা গরম পানির সাথে মিশিয়ে খেতে পারেন। যেভাবে আপনি গোলমরিচ খান না কেন এটি আপনার গলা ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে থাকে।

মধু

মধু খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি উপাদান। যেটি আমরা বিভিন্ন কাজে বিভিন্ন সভায় ব্যবহার করে থাকে। মধুর উপকার এর শেষ নেয়। মধুর উপকার বলে শেষ করার মতো না। মধু আমরা সবাই খেয়ে থাকি। তবে মধু বেশিরভাগ সময় আমরা বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের জন্য খেয়ে থাকি। তাই আপনি আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য মধু খেতে পারেন। মধু আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য চমৎকার কাজে দিবে। শুধু গলাব্যথা না আপনার অন্য যেকোন সমস্যার জন্য মধু খেতে পারেন। আপনার দেহের জন্য খুবই উপকারী। মধু পছন্দ করে না এমন মানুষ পাওয়া যায় না। অনেক পছন্দ করি। আপনার পছন্দের খাবার হিসেবে আপনি রাখতে পারেন। এটি আপনার গলা ব্যথা দূর করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। আপনি যেকোন মধু খেতে পারেন। আপনি যদি খেতে পারেন তাহলে আপনার গলা ব্যথা উপশম পাবেন।

কাঁচা বাদাম কেন খাবেন? কাঁচা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা? Bangla Health tips 2022

আদা

গলা ব্যথা দূর করার জন্য আধা খুবই পরিচিত একটি উপাদান। আমাদের যখন সর্দি বা গলা ব্যথা হয় তখন আমরা সবাই আদর খেয়ে থাকে। আমাদের জন্য খুবই চমৎকার কাজে দেয়। আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য খুবই কাজে আসবে। গলা ব্যথা হলে বিভিন্নভাবে আদা খাওয়া যেতে পারে। আপনি গরম পানির সাথে আধা মিশিয়ে খেতে পারেন। আপনি কিছু পরিমান গরম পানি নিলেন তার সাথে কিছু পরিমাণ আদা কুচি দিলেন। সেটি আপনি ভালভাবে খেয়ে নেবেন। তাহলে আপনার গলা ব্যথা কিছুটা কমে যাবে। অথবা আপনি চাইলে কিছু আদা এবং কিছু পানি গরম করে নিবেন। তারপর সেগুলো খাবেন আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য। এছাড়াও চাইলে আপনি আদার চা খেতে পারেন। আপনার গলা ব্যথা দূর করতে সাহায্য করবে এমনকি আপনি কিছু আদা কুচি কুচি করে খেতে পারেন। তাহলে আপনার গলা ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে থাকবে। অর্থাৎ আপনি গলা ব্যথা দূর করার জন্য আদা খেতে পারেন।

বিশ্রাম

কিভাবে কাশি দূর করা যায়? কাশি দূর করার উপায় - কাশি ভালো করার উপায়
গলা ব্যথা দূর করার জন্য যেমন অন্যান্য উপায়গুলো অবলম্বন করা উচিত। অনন্য উপাদান গুলো খাওয়া উচিত। ঠিক তেমনি আপনার প্রয়োজন পর্যাপ্ত পরিমাণ বিশ্রাম। কেননা আপনি যদি গলা ব্যথার সময় কোন কাজ করতে থাকেন। তখন আপনার গলা ব্যথা বেড়ে যেতে পারে। আপনার শরীর খারাপ লাগতে পারে। আবার অসুস্থ লাগতে পারে। ক্লান্ত লাগতে পারে। যার মাধ্যমে আপনার গলা ব্যথা তখন বেড়ে যেতে পারে। আপনার উচিত তখন পর্যাপ্ত পরিমাণ বিশ্রাম নেওয়া। বিশ্রাম নিলে আপনার কোন উপাদান গুলো ভালোভাবে কাজ করবে। এবং আপনার শরীর ভালো লাগবে। আপনার ক্লান্তি বোধ হবে না। এবং আপনার কোন উপাদান গুলো ভালোভাবে যখন কাজ করে। তখন আপনার গলা ব্যথা কমবে। অন্যথায় আপনি যদি বিশ্রাম নেন। তখন আপনার গলা ব্যথা নাও করতে পারে। তাই আপনার যখন গলা ব্যথা হবে। তখন আপনার উচিত হবে পর্যাপ্ত পরিমাণ বিশ্রাম নেওয়া আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য।

পুষ্টিকর খাবার

গলা ব্যথা দূর করার জন্য আরেকটি উপায় হল পুষ্টিকর খাবার খাওয়া। শুধু গলাব্যথা না আমাদের যেকোন সময় উচিত পুষ্টিকর খাবার খাওয়া। পুষ্টিকর খাবার খেলে আমাদের শরীর ঠিক থাকে। স্বাস্থ্য ঠিক থাকে। আমরা সুস্থ থাকি। আমরা ভালো থাকতে পারি। তাই আপনার যখন গলা ব্যথা হবে তখন আপনার উচিত হবে পুষ্টিকর খাবার খাওয়া। পুষ্টিকর খাবার খেলে আপনার শরীর সুস্থ থাকবে। এবং আপনি যদি কোন উপাদান গুলো গ্রহণ করে থাকে। তখন সেগুলো আপনার ভালোভাবে কাজ করবেন এবং আপনার মাঝে পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার পর ক্লান্তি ভাব কম আসবে। এবং আপনি কিছুটা সুস্থ বোধ করবেন। আপনার অন্যান্য অঙ্গ পতঙ্গ ভালোভাবে কাজ করবে। আপনাকে আরামদায়ক হতে সাহায্য করবে। তাই অবশ্যই আপনার যখন গলা ব্যথা হবে তখন আপনি পুষ্টিকর খাবার খাবেন।

বেকিং সোডা

গলা ব্যথা দূর করার জন্য আরেকটি উপাদান হলো বেকিং সোডা। আপনি কিছু পানির সাথে বেকিং সোডা মিশিয়ে তারপর আপনি আপনার গলা ব্যথার জন্য বেকিং সোডা খেতে পারেন। আপনি বিভিন্নভাবে বেকিং সোডা খেতে পারেন। সেটা যেকোন উপায় অবলম্বন করার মাধ্যমে বেকিং সোডা খেতে পারেন। আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য খুবই চমৎকার ভূমিকা পালন করে থাকে। কিন্তু হয়তো আমরা অনেকেই জানিনা বেকিং সোডা আমাদের গলা ব্যথার জন্য উপকার করে থাকে। হয়তো আমরা অনেকেই বিভিন্ন কাজে বেকিং সোডা ব্যবহার করে থাকি। এবং বিভিন্ন সময়ে আমরা বিভিন্ন কাজে আমরা বেকিং সোডা খেয়ে থাকি। কিন্তু আমরা হয়তো এটা জানেনা বেকিং সোডা আমাদের এই সময়ে গলা ব্যথা দূর করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই আপনি গলা ব্যথা দূর করার জন্য বেকিং সোডা খেতে পারেন।

ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া

আপনার যখন গলা ব্যথা হবে তখন অবশ্যই আপনি আপনার ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। প্রত্যেক মানুষই কোনো না কোনো ব্যক্তিগত ডাক্তার থাকে বা কোন ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে থাকে। যখন তার কোন সমস্যা হয়। তাই আপনারা যখন গলা ব্যথা হবে তখন আপনি ডাক্তারের পরামর্শ নিতে পারেন। অবশ্যই চাইলে আপনি উপরোক্ত উপায়গুলো অবলম্বন করতে পারেন। এর পাশাপাশি আপনার ডাক্তার আপনাকে যেভাবে বলবে আমি সেভাবেই কাজ করতে হবে। আপনার গলা ব্যথা দূর করার জন্য এর পাশাপাশি আপনি উপরোক্ত উপায়গুলো অবলম্বন করতে পারেন ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে। এছাড়া আপনি চাইলে প্রথমেই আপনার ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করে আপনার ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী উপরোক্ত উপায় অবলম্বন করে দেখতে পারেন আপনার গলা ব্যথা দূর হওয়ার জন্য।

এ ছিল আজকে গলা ব্যথা দূর করার উপায় গলা ব্যথা দূর করার ঘরোয়া উপায়। কিভাবে গলা ব্যথা দূর করা যায়? এ বিষয়ে আর্টিকেল এই আর্টিকেলটি পড়ে আপনারাও উপকৃত হবেন। তবে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

Post a Comment

Previous Post Next Post